সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর

করোনাভাইরাস থেকে মুক্তি দিতে পারে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা : ডা. রাশেদুল হক

নিজস্ব প্রতিবেদক:
করোনাভাইরাসে আতঙ্ক গোটা বিশ্বে। এই মরণঘাতী ভাইরাস মোকাবেলায় অসহায় বাংলাদেশ। বাংলাদেশ করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত ৯৭৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও এ ভাইরাসটিতে একদিনে নতুন করে আরও তিন হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে এ ভাইরাসে বাংলাদেশর আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ৭২ হাজার জনের মত।

করোনাভাইরাসে এখনও পর্যন্ত ঔষধ বা ভ্যাকসিন তৈরিতে অক্ষম বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের চিকিৎসকরা। কড়া নজরদারি, করোনা আক্রান্ত সন্দেহে রোগীদের বিচ্ছিন্ন চিকিৎসা ব্যবস্থা ছাড়া আর কোনো পদক্ষেপ এখনও পর্যন্ত সম্ভব হয়নি।

কিন্তু রাজধানীর ইনো হেলথ এন্ড হোমিও কনসালটেন্ট পয়েন্ট এর কর্ণধার ডক্টর মোহাম্মদ রাশিদুল হকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, করোনা মোকাবেলায় উপযুক্ত ঔষধ তাদের হাতে রয়েছে। ভ্যাকসিন বা অ্যালোপ্যাথি ঔষধ নয়, হোমিওপ্যাথিতেই করোনা প্রতিরোধ করা যাবে।

ডা. মোহাম্মদ রাশেদুল হক আরও বলেন, হোমিওপ্যাথি চিকিৎসায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধ করা যায়। করোনা আক্রান্তের উপসর্গ সারানোর জন্য হোমিওপ্যাথি ঔষধ অত্যন্ত কার্যকর।

তিনি সেন্ট্রাল পুলিশ হাসপাতালে ৬৫ জন করোনা রোগীকে হোমিও ঔষধ সেবন করিয়েছেন এর মধ্যে ৫৫ ভালো হয়েছেন এবং ৫ হাজারের বেশি মানুষদের প্রতিরোধক ঔষধ দেন।

জানা যায়, তার দেওয়া প্রতিরোধক ঔষধ সেবন করেছে তারা এখন পর্যন্ত কেউ করোনা আক্রান্ত হয়নি। তাছাড়া তার কাছ থেকে হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিরা করোনা থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

তিনি এর জন্য একটি নির্দেশিকা প্রচার করেছেন। কী করা উচিত, কী করা উচিত নয় তার একটি তালিকাও প্রকাশ করেছেন। এমন কী ঔষধগুলো কিভাবে খেতে হবে, তাও বলা হয়েছে।

তার মতে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে দক্ষ হোমিওপ্যাথি ডাক্তার নিয়োগ করলে দেশ থেকে অচিরে করোনা ভাইরাস দুর করা যাবে।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.