সকল অন্যায়ের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর

নালিতাবাড়ীতে দুই সাংবাদিককে গালিগালাজ-মারধর, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

শেরপুর প্রতিনিধি:
শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার কাকরকান্দি ইউনিয়নের এলজি এসপি প্রকল্প-৩ এর কাজে অনিয়মের বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান শহীদুল্লাহ তালুকদার মুকুলের বক্তব্য জানতে চাওয়ায় দুই সাংবাদিককে শারিরীক ও মানসিকভাবে লাঞ্চিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১২ জুলাই, সোমবার দুপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

এসময় জয়যাত্রা টিভির জেলা প্রতিনিধি আলমগীর হোসেন এবং জেটিভি ও দৈনিক দেশেরপত্র পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি শফিউল আলম সম্রাটকে গালিগালাজ ও কিলঘুষি মারেন চেয়ারম্যান ও তার লোকজন। এছাড়াও তার লোকজনকে দিয়ে দুটি ক্যামেরা ও এনড্রয়েট দুটি মোবাইল ফোন জোর পূর্বক ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ব্যপারে নালিতাবাড়ী থানায় চেয়ারম্যান শহদিুল্লাহ তালুকদার মুকুলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, নালিতাবাড়ী এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের কাকরকান্দি ৪ নং ওয়ার্ডের কাকর কান্দি দক্ষিন বাজার ও উত্তর বাজার জামে মসজিদের সাব-মার্সিবল স্থাপনের সাইনবোর্ড দেখা যায়। কিন্তু দক্ষিণ বাজারের সাব-মার্সিবলটি স্থাপনের কোন আলামত দেখা যায় নি। সাব-মার্সিবল স্থাপনের ব্যাপারে এলাকাবাসীর সাথে সাংবাদিকদের কথা হলে তারা জানান, উত্তর বাজার জামে মসজিদের সাব মার্সিবল স্থাপন করতে আমরা দেখেছি, কিন্তু দক্ষিণ বাজারের সাব মার্সিবল স্থাপন করতে আমরা দেখি নাই।

এ বিষয়ে সাংবাদিকদ্বয় চেয়ারম্যন শহীদুল্লাহ তালুকদার মুকুলের বক্তব্য নিতে ইউনিয়ন পরিষদে যায় সাংবাদিকরা। প্রকল্প সর্ম্পকে জিজ্ঞেস করার সাথে সাথে অকথ্য ভাষায় গলিগালাজ শুরু করে। এসময় চেয়ারম্যান শহীদুল তালুকদার মুকুল সাংবাদিক শফিউল আলম সম্রাটের শার্টের কলার ধরে কিলঘুষি দেয়।

উল্লেখ্য দক্ষিণ বাজারস্থ সার্ব-মার্সিবল স্থাপন না করে শুধুমাত্র নেমপ্লেট ও একটি ট্যাংকি দিয়ে সরকারী টাকা উত্তোলন করার অভিযোগ রয়েছে চেয়ারম্যান মুকুলের বিরুদ্ধে।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.