হারাগাছ থানা প্রতিনিধি, রংপুর:
৩টি কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে হারাগাছ সাহিত্য সংসদ। বৃহস্পতিবার বিকেলে হারাগাছ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের হলরুমে হারাগাছ সাহিত্য সংসদের ৩ জন কবির বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন- কবি ও ইতিহাসবিদ আবুল কাশেম মাস্টার। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আব্দুস ছাত্তার, অধ্যক্ষ হারাগাছ সরকারি কলেজ। বিশেষ অতিথি প্রফেসর আতাহার আলী খান, সাবেক অধ্যাপক বাংলা বিভাগ কারমাইকেল কলেজ, ড. শাহ সুলতানা তালুকদার, কবি ও শিক্ষাবিদ, সাঈদ সাহেদুল ইসলাম বিশিষ্ট ছড়াকার ও গীতিকার, আমিন উদ্দিন বিএসসি শ্রমিকনেতা, রেজাউল করিম জীবন, সম্পাদক মৌচাক, সদস্য সিটি প্রেসক্লাব রংপুর।

কবি ও সাহিত্যিক মাসুম মোরশেদ তার বক্তব্যে বলেন- ‘বসন্ত বাও’ রংপুর অঞ্চল যেমন প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপর তেমনি এখানে রয়েছে হাজার বছরের ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও নিজস্ব আঞ্চলিক ভাষা। এই ভাষায় রচিত সমৃদ্ধ ভাওয়াইয়া গান শুধু এই অঞ্চলে নয় সারা বাংলাদেশ, ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সমাদৃত। বহু কবি সাহিত্যক রংপুরের আঞ্চলিক ভাষায় সাহিত্য রচনা করেছেন।

তিনি বলেন- “বসন্ত বাও” কাব্যগ্রন্থে রংপুরের সহজ ও সরল প্রকৃতির মানুষের নিত্যদিনের নির্যাস ঘেঁটে তাঁদের সুখ-দুঃখ, প্রেম-বিরহ, ভালো লাগা-ভালোবাসা, আনন্দ-বেদনা, হাসি-কান্না রংপুরের আঞ্চলিক ভাষায় ফুটিয়ে তুলতে কবি চেষ্টা করেছেন। এর সাথে অন্য অঞ্চলের পাঠকদের অর্থ বোঝার ক্ষেত্রে সহায়ক হিসেবে প্রতিটি কবিতার নিচে বিশেষ বিশেষ শব্দের অর্থ প্রমিত বাংলায় উপস্থাপন করা হয়েছে। আশা করছি সকল পাঠকদের ভালো লাগবে। যে কোন মন্তব্য, আলোচনা কিংবা সমালোচনা জানালে আমরা সমৃদ্ধ হবো এবং কৃতজ্ঞ থাকবে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- কবি ও সাহিত্যিক রিয়াজুল হক সাগর, আহসান হাবীব হিরু, সোহওয়ার্দী, আল মাহমুদ তাপস ময়নুল হক সহ ‘অভিমানে অনুভবে’ মুয়াখ্যিরা খানুম স্বপ্না ও ‘প্রজাপতি মন’ দিলগীর আলম প্রমুখ।