Date: May 20, 2024

দৈনিক বজ্রশক্তি

Header
collapse
...
Home / সারাদেশ / চট্টগ্রাম / দেশেরপত্রের বিক্রয় প্রতিনিধিদের উপর হামলা, থানায় অভিযোগের পর আপোষ

দেশেরপত্রের বিক্রয় প্রতিনিধিদের উপর হামলা, থানায় অভিযোগের পর আপোষ

May 08, 2024 05:02:08 AM   স্টাফ রিপোর্টার
দেশেরপত্রের বিক্রয় প্রতিনিধিদের উপর হামলা, থানায় অভিযোগের পর আপোষ

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে দেশেরপত্রের বিক্রয় প্রতিনিধিদের উপর হামলার ঘটনায় থানায় অভিযোগের পর ভুল স্বীকার করে মুচলেকা দিল আসামিপক্ষ। মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল ২০২৪) বেগমগঞ্জ উপজেলার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে বিষয়টির মীমাংসা হয়।

থানায় কৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২ এপ্রিল দুপুর দেড়টায় বেগমগঞ্জ চৌরাস্তায় পত্রিকা বিক্রি করছিল দেশেরপত্রের দুই বিক্রয় প্রতিনিধি হাবসা আক্তার (পলি) ও বুলবুলি আক্তার। বাজারের স্বপন মিষ্টি বিতানের সামনে পত্রিকা বিক্রয়কালে বেগমগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নুর হোসেন মাসুদের  ভাগিনা মো. সাগর ও তার কিছু লম্পট সাঙ্গপাঙ্গ মহিলা বিক্রয় প্রতিনিধিদের অশ্লীল অশ্রাব্য ভাষায় কটুক্তি করে। পরে স্থানীয় জনতার তোপের মুখে পরে বখাটেরা। এ সময় সাধারণ জনগণ নারী বিক্রয় প্রতিনিধিদ্বয়কে নিরাপদে স্থান ত্যাগ করিয়ে দেয়। পরে ওই এলাকায় পত্রিকা বিক্রি করতে যায় বিক্রয় প্রতিনিধি মো: ইব্রহীম ও মো: সাকিব। ধর্মীয় উগ্রবাদী অজ্ঞতনামা ৪/৫ জন উচ্ছৃঙ্খল যুবক তাদেরকে ডেকে নিয়ে যায়।  সেখানে আগে থেকে অবস্থান নেয়া সাগর পত্রিকাটি নিষিদ্ধ অপবাদ দিয়ে তাদেরকে পত্রিকা বিক্রিতে বাধাদান করে । বিক্রয় প্রতিনিধিরা এর প্রতিবাদ করলে তাদের উপর চড়াও হয় সাগর ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা। একপর্যায়ে তাদের বেধরক মারধর করে বখাটেরা। পরবর্তীতে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় ঐদিনই বেগমগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করেন দৈনিক দেশেরপত্র পত্রিকার স্থানীয় সার্কুলেসন ম্যানেজার মো. শাহিদুর রহমান।

এদিকে অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশি তদন্ত শুরু হলে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়ে আসামিপক্ষ। পরবর্তীতে অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা এড়াতে পুলিশের মধ্যস্থতায় আপোষ মীমাংসার প্রস্তাব দেয় আসামি পক্ষ। গত ৭ এপ্রিল দুপুর ২ টায় বেগমগঞ্জ থানায় উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নুর হোসেন মাসুদ ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে এ আপোষ মীমাংসা হয়। আসামিপক্ষের সাগরসহ অন্যান্যরা না জেনে, মিথ্যা ও ভুল তথ্যের ভিত্তিতে বিক্রয় প্রতিনিধিদের উপর চড়াও হয় বলে জানায়। পরবর্তীতে তারা দেশেরপত্র পত্রিকা বিক্রিতে কোনোপ্রকার বাধা দেবে না এবং বিক্রয় প্রতিনিধিদের কোনোপ্রকার হেনস্তা করবে না বলে প্রতিশ্রুতি দেয়। ভবিষ্যতে কখনো এমন ঘটনার অবতারণা করলে তাদের ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে মর্মে আপোষনামায় স্বাক্ষর করেন। বাদী পক্ষও উক্ত ঘটনায় ক্ষোভ পোষণ করবে না মর্মে স্বাক্ষর করেন।

বেগমগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নুর হোসেন মাসুদ জানান, দৈনিক দেশেরপত্রের বিক্রয় প্রতিনিধির সাথে তার এক আত্মীয়ের তর্কবিতর্ক হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়। পরবর্তীতে থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করা হলে পুলিশ উভয়পক্ষকে থানায় ডাকে। উভয়পক্ষ থানায় আসলে পুলিশের মধ্যস্থতায় দুইপক্ষের মধ্যে আপোষ মীমাংসা হয়।

তিনি আরো বলেন, একটি ভুলবোঝাবুঝির কারণে এঘটনা সংঘটিত হয়েছে। পরবর্তীতে এমন ঘটনার অবতারণা হবে না। আমরা দেশেরপত্রের কাজে সহযোগিতা করব। একে অপরের সাথে সহযোগিতাপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে চলব।